Header Border

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২রা ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ (হেমন্তকাল) ২০.৯৬°সে
শিরোনাম:
লক্ষ্মীপুরের চরশাহীতে অস্ত্র ঠেকিয়ে মাদ্রাসা ছাত্রীকে অপহরণের চেষ্টা লামচর ইউপি নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ করার দাবি ফয়েজ উল্যা জিসানের কমলনগরে সরকারী ভূমি থেকে অবৈধ দোকানঘর উচ্ছেদ কমলনগরে যাত্রীবাহী বাস ফুটপাতে, আহত ২০ লক্ষ্মীপুর- ঢাকা লঞ্চ সার্ভিস শুভ উদ্বোধন দালালবাজার ইউপিতে নৌকায় উঠতে চান নুরনবী চৌধুরী ও নুরজ্জামান মাস্টার কমলনগরে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে মা-ছেলেকে কুপিয়ে জখম লক্ষ্মীপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় স্কুলশিক্ষার্থী মামাতো-ফুফাতো বোনের মৃত্যু কমলনগরের চরকাদিরা ইউপি নির্বাচনে সংঘর্ষে আহত ১০ রামগঞ্জে সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের দাবীতে স্বতন্ত্র প্রার্থীদের সাংবাদিক সম্মেলন

লক্ষ্মীপুরের মোহাম্মদনগরে শতাধিক কৃষকের যাতায়াতের পথ বন্ধের পাঁয়তারা

লক্ষীপুর সদর উপজেলা মান্দারী ইউনিয়নের মোহাম্মদনগর গ্রামের প্রায় ৫শ একর ফসলি জমিতে যাতায়াতের একমাত্র রাস্তাটি বন্ধ করে দেওয়ার পাঁয়তারা করা হচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে।
প্রতি মৌসুমে ওই সড়ক দিয়ে প্রায় শতাধিক কৃষক কৃষি জমির শস্য আনা-নেওয়া করে। মোহাম্মদনগর গ্রামের মীর বাড়ি মসজিদ সংলগ্ন মৃত সৈয়দ আলীর পুত্র নুর নবী চৌধুরী ও মো. হোসেনের বিরুদ্ধে এ অভিযোগ করেন এলাকাবাসী। এতে স্থানীয়দের মধ্যে ক্ষোভ বিরাজ করতে দেখা গেছে। হতাশা বিরাজ করছে ফসলি জমির কৃষকদের মাঝে।
এলাকাবাসী জানায়, মান্দারীর সমাজপুর-মোহাম্মদনগর সড়কের মুখ থেকে নুর নবী চৌধুরী বাড়ির সম্মূখ হয়ে পূর্ব দিকে মান্দারী খাসের বাড়ির রাস্তা পর্যন্ত ৫ শত একর কৃষি জমি রয়েছে। প্রায় ২২ বছর থেকে ওই সড়ক দিয়ে সাধারণ লোকজন ও স্থানীয় কৃষকরা চলাচল করে এবং জমির ফসল ঘরে তোলে। সড়কটি স্থানীয় আসলাম বেপারী, ইদ্রিস মিয়া, মুসলিম মিয়া ও কালামিয়া গংদের প্রায় ১৪ শতাংশ জায়গার উপর রয়েছে। সম্প্রতি মৃত মুসলিম মিয়ার ওয়ারিশ নুর নবী চৌধুরী ও তার মেয়ে লাকি বেগম এবং ভাই মো. হোসেন রাস্তার প্রধান অংশে সীমানা প্রাচীর দিয়ে বন্ধ করে দেওয়ার চেষ্টা করলে স্থানীয় ইউপি সদস্য মো. মাসুদ আলম ও স্থানীয় কৃষকরা বাধা দেয়। পরবর্তীতের ইউপি সদস্য মাসুদকে আসামী করে আদালতে মিস মামলা দায়ের করে নুরনবী।
স্থানীয় বাসিন্দা নুর হোসেন ও কৃষক মোস্তফা বলেন, দীর্ঘ সময় থেকে এ রাস্তাটি কৃষকরা ব্যবহার করে আসছে। প্রায় ৫শ একর ফসলি মাঠে যাতায়াতের একমাত্র রাস্তাটি এখন বন্ধ হয়ে গেলে প্রায় একশ কৃষক বেকাদায় পড়বে। তাই কৃষকের স্বার্থে রাস্তাটির চলাচল উন্মুক্ত রাখার দাবি জানাই।
আবুল হোসেন নামে স্থানীয় একজন বলেন, রাস্তার জমির একাংশ আমাদের পূর্ব পুরুষের। বৃহৎ স্বার্থে আমারা ওয়ারিশি মালিকানা দাবি না করে রাস্তার জন্য জমি ছেড়ে দিয়েছি।
মান্দারী ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ড সদস্য (মেম্বার) মো. মাসুদ আলম বলেন, কৃষক ও এলাকাবাসীর স্বার্থে আমি রাস্তাটি উন্মুক্ত রাখার অনুরোধ জানালে নুরনবী আমার বিরুদ্ধে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মিস মামলা করে। রাস্তাটি যে দাগের উপর আছে, ওই দাগের মূল মালিকানা জমির অতিরিক্ত অংশে রাস্তাটির অবস্থান। এটি কৃষকদের চলাচলের রাস্তা। ব্যক্তি স্বার্থে একটি পক্ষ রাস্তাটি বন্ধ করার পাঁয়তারা করছে। বিষয়টি নিয়ে ইউনিয়ন পরিষদের মাধ্যমে বৈঠক বসে রাস্তা উন্মুক্ত রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হলেও নুরনবীগং সিদ্ধান্ত না মেনে উল্টো আমাকে মামলা এবং হামলার হুকমি দিচ্ছে।
অভিযুক্ত নুর নবী ও তার পরিবারের সদস্যরা বলেন, রাস্তাটি তাদের জমির উপর দিয়ে অবস্থিত। সেখান দিয়ে মাঝে মধ্যে কৃষকরা চলাফেরা করে। তবে রাস্তার কারণে আমাদের বসত বাড়ি অরক্ষিত। তাই বাড়িটি সুরক্ষিত রাখার জন্য আমরা সীমানা প্রাচীর নির্মাণের উদ্যোগ নিই। কিন্তু ইউপি সদস্য মো. মাসুদ আলম কৃষকদের নাম ব্যবহার করে আমাদের জমির উপর দিয়ে স্থায়ী রাস্তা তৈরী করার জন্য পাঁয়তারা করছে। সে আমাদের সীমানা প্রাচীর নির্মাণ কাজে বাঁধা দিয়ে রেখেছে। এ বিষয়ে আমরা আদালতে মামলা করেছি।

শেয়ার করুন:

আপনার মতামত লিখুন :

আরও পড়ুন

লক্ষ্মীপুরের চরশাহীতে অস্ত্র ঠেকিয়ে মাদ্রাসা ছাত্রীকে অপহরণের চেষ্টা
লামচর ইউপি নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ করার দাবি ফয়েজ উল্যা জিসানের
কমলনগরে সরকারী ভূমি থেকে অবৈধ দোকানঘর উচ্ছেদ
কমলনগরে যাত্রীবাহী বাস ফুটপাতে, আহত ২০
লক্ষ্মীপুর- ঢাকা লঞ্চ সার্ভিস শুভ উদ্বোধন
দালালবাজার ইউপিতে নৌকায় উঠতে চান নুরনবী চৌধুরী ও নুরজ্জামান মাস্টার

আরও খবর

সম্পাদক প্রকাশক: এ.কে.এম. মিজানুর রহমান মুকুল