Header Border

ঢাকা, শনিবার, ২৩শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৯ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ (শীতকাল) ২২°সে
শিরোনাম:
লক্ষ্মীপুরে ট্রাক-সিএনজি অটোরিক্সা সংঘর্ষে নিহত ১ আহত ৬ রামগতি-কমলনগরে মাটি পরিবহনে বিবর্ণ সড়ক যন্ত্রদানব ট্রাক্টরের যন্ত্রণায় অতিষ্ঠ জনজীবন লক্ষ্মীপুরে রাস্তার পাশে ইটভাটা শ্রমিকের ঝুলন্ত লাশ, পরিবারের দাবী হত্যা রামগতি-কমলনগরে স্বর্ণ ব্যবসার আড়ালে চলছে জমজমাট সুদের ব্যবসা কমলনগরে ১০৫ পিচ ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসায়ী মাহফুজুল গ্রেপ্তার লক্ষ্মীপুরে ২৫০ গ্রাম গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী জামাল গ্রেপ্তার কমলনগরে নবাগত জেলা প্রশাসকের মতবিনিময় ও কম্বল বিতরণ লক্ষ্মীপুরে ৯০ পিচ ইয়াবাসহ দশ মাদক মামলার আসামী কিরন গ্রেপ্তার সরকারবিরোধী আন্দোলনে দলমত নির্বিশেষে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে: শাহাদাত হোসেন শেলিম রামগঞ্জে নারী কর্মস্হান বৃদ্ধির লক্ষ্যে সেলাই মেশিন ও শীতবস্ত্র বিতরণ

যাবজ্জীবন মানে আমৃত্যু কারাদণ্ড? রিভিউ রায় ১ ডিসেম্বর

‘যাবজ্জীবন সাজা মানে আমৃত্যু কারাদণ্ড’- এ সংক্রান্ত আপিল বিভাগের রায় পুনর্বিবেচনা (রিভিউ) চেয়ে করা আবেদনের ওপর আগামী ১ ডিসেম্বর রায়ের তারিখ ধার্য করেছেন দেশের সর্বোচ্চ আদালত।

মঙ্গলবার প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বাধীন সাত বিচাপতির আপিল বেঞ্চ রায়ের জন্য এ দিন ধার্য করেন।

এর আগে গত বছরের ১১ জুলাই রিভিউ মামলাটি রায়ের জন্য অপেক্ষমাণ রাখা হয়। বিষয়টি আজ আবার আপিল বিভাগের কার্যতালিকায় ওঠে।

আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল এ এম আমিন উদ্দিন ও ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বিশ্বজিৎ দেবনাথ। আসামিপক্ষে ছিলেন আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেন ও শিশির মনির।

প্রসঙ্গত ২০০১ সালে সাভারে জামান নামে এক ব্যক্তিকে গুলি করে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় ২০০৩ সালে তিনজনকে মৃত্যুদণ্ড দেন দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল। হাইকোর্টে আপিলের পর বিচারিক আদালতের দণ্ড বহাল থাকে।

এর বিরুদ্ধে আপিলের পর ২০১৭ সালের ১৪ ফেব্রুয়ারি আসামিদের মৃত্যুদণ্ড মওকুফ করে আমৃত্যু কারাদণ্ড দেন সর্বোচ্চ আদালত।

রায় ঘোষণার সময় আপিল বিভাগ ‘যাবজ্জীবন কারাদণ্ড মানে আমৃত্যু কারাবাস’ এমন মন্তব্য করেন। এর প্রতিবাদ জানান আসামিপক্ষের আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেন।

তবে ওই দিন অন্যান্য মামলার আসামির ক্ষেত্রেও এ সিদ্ধান্ত প্রযোজ্য হবে কিনা সে বিষয়ে প্রয়াত অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম বলেছিলেন, সবার ক্ষেত্রে এ রায় প্রযোজ্য হবে কিনা সেটি পূর্ণাঙ্গ রায় না হওয়া পর্যন্ত বলা যাবে না।

ওই দিন খন্দকার মাহবুব হোসেন বলেছিলেন, রায়ের সময় প্রধান বিচারপতি বলেন, যাবজ্জীবন মানে আমৃত্যু (ন্যাচারাল লাইফ) কারাবাস। আমি প্রতিবাদ করে বলেছিলাম, দণ্ডবিধির ৫৭ ধারায় যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের অর্থ ৩০ বছর। এ ছাড়া যাবজ্জীবনের আসামিরা কারাগারে রেয়াত পেয়ে দণ্ড সাড়ে ২২ বছরে নেমে আসে। যদি আমৃত্যুই হয়ে থাকে, তা হলে তাদের রেয়াতের কি হবে? আমি আরও বলেছিলাম, প্রধান বিচারপতির এ মন্তব্য যেন মূল রায়ে না থাকে। তবে যদি থাকে, তা হলে সব আসামির ক্ষেত্রে এটি প্রযোজ্য হবে।

২০১৭ সালের ২৪ এপ্রিল সুপ্রিমকোর্টের ওয়েবসাইটে এ মামলার ৯২ পৃষ্ঠার পূর্ণাঙ্গ এ রায় প্রকাশিত হয়। পরে ২০১৭ সালের ৫ নভেম্বর আতাউর রহমান মৃধার আইনজীবী ওই রায়ের রিভিউর কথা সাংবাদিকদের জানান।

শেয়ার করুন:

আপনার মতামত লিখুন :

আরও পড়ুন

সরকারবিরোধী আন্দোলনে দলমত নির্বিশেষে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে: শাহাদাত হোসেন শেলিম
রামগঞ্জে নারী কর্মস্হান বৃদ্ধির লক্ষ্যে সেলাই মেশিন ও শীতবস্ত্র বিতরণ
আসামী সনাক্তে ব্যর্থ সিআইডি! রামগতি’র শিশু কুলছুম হত্যা মামলার পুনঃতদন্ত পিবিআই’তে
ঢাকা-লক্ষ্মীপুর নৌপথের মেঘনা নদী খনন কাজের উদ্বোধন
রাজশাহীতে ধর্ষণের শিকার তরুণীকে বিয়ে করায় জামিন পেলেন আসামি
কমিটিগঠনে ত্যাগীদের রাখতে হবে : বর্ধিত সভায় ওবায়দুল কাদের

আরও খবর

সম্পাদক প্রকাশক: এ.কে.এম. মিজানুর রহমান মুকুল